জীবনজ্যোতির আলো

মানুষ টা কিন্তু আমি আগের মতই সেই,
কিন্তু মন তো আগের মত নেই,
ছোয়া লাগে যখন মনে প্রাণে,
বিদ্যুৎচমক যখন আলো আনে,
রইনা আমি সেই আগের আমি,
ব্যাথা বেদনার সব ভুলে যাই জানি।
মন তাই অন্যরকম হয়ে গেছে,   
নুতন সুরের সিতার বাজে তাতে
সেইমধুর সুর, শুনবে না কেউ কোনদিন
থাকবে ঢাকা তোমার থেকে অনেক দূরে।
কিন্তু ভাবি,এখন না হয় পারলাম,
দড়িতে গিট বেধে গেছে,
কতদিন রইবে এরকম  
ভবিতব্য আমাদের দূরে রাখতে?
তাই বলি,মানুষটা আমি আগের মত নেই,
তবে বুঝি,ব্যাথা বেদনা, যা আছে আমার সেই,
তাই নিয়ে রয়ে যাব হেসে খেলে,বাকি জীবনটা
ঠিক যেন কিছু জড়ো করা কিছু ছেড়া পাতাটা।
মানুষ তো নিত্ত পরিবর্তনশীল,
কতকি থাকে মাঝে আজআমি আর কালআমি
তবে যদি থাকে মাঝে এক লাইটহাউস,
যে জ্বালিয়ে রাখবে সর্বদা আশার আলো,
মনের মাঝে এক দীপশিখা,
যে মনকে সকল কালিমা থেকে মুক্ত করে
দেখায় আলোর দিশা,
এগিয়ে যেতে পারি একইভাবে
হাসিমুখে জীবনের পথে।
মনে কর আমি সেই লাইট হাউস,
আমি সেই আছি নিয়ে আশার আলো,
নির্জন তীরে একা একপায়ে দাড়িয়ে,
যুগযুগ ধরে চলেছি দীপ জ্বালিয়ে,
একদিন আসবে যখন সে নিয়ে উষ্ণতা,
ভরে দেব জীবনজ্যোতির আলো তার হৃদয়ে,
ততদিন দূর থেকে দুর করব মনের কালিমা,
শুস্ক মালাখানি যত্নে রাখিব কোঠরে।

Leave a Reply

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.