Temples of 11th century

State Time Place Temple Deity link photo HP 920CE chamba Champavati Temple Durga https://en.wikipedia.org/wiki/Chamba,_Himachal_Pradesh 1000CE chamba Chandragupta Mahadev  Shiva http://lsi.gov.in:8081/jspui/bitstream/123456789/4807/1/44121_1961_BRA.pdf 1100CE chamba Hari Rai temple Vishnu http://www.himachaltouristguide.com/index.php/chamba/chamba-town/places-of-interest/467-hari-rai-temple 1739CE chamba Vajreswari Devi  Parvati https://en.wikipedia.org/wiki/Vajreshwari_Temple MP 750CE Gwalior Teli Ka Mandir Shiva 900CE chandella Brahma Temple Brahma 950CE chandella Lakshmana Temple Vishnu 950CE khajuraho Khandariya Mahadeva Temple… Continue reading Temples of 11th century

নারী

কখনো তুমি পূজারিণী,নৈবেদ্যর থালা হাতের বাকে,কখনো তুমি কাঞ্চনকন্যা অপ্সরা,ঝিনিকিঝিনি নূপুর ডাকে। কখনো তুমি খুন্তি হাতে,পোলাও মাংসর কড়াই নাড়াও,কখনো তুমি আদর করে,পাশে বসে পাখা বাড়াও। কখনো তুমি রণরঙ্গিণী,অন্যায়ের প্রতিবাদে বাঘিনীকখনো বা তুমি কুহু কন্ঠে,মধুমালতীর মধু দিলে ঢালি। তুমি বন্ধু তুমি সহোদরা,তুমি সখী তুমি ভার্যা,তুমিই মাতা,দেবী শতরুপা। তোমার অন্যতম পরিচয় তুমি যে নারী,তোমা দিয়ে জীবন শুরু,তোমার অন্তিমে,সবশেষ… Continue reading নারী

রদ্দুর

এক চিলতে রদ্দুর ঝাপিয়ে পড়ে রোজ,আমার মুখের উপর,জানালার কড়িকাঠের ফাক দিয়ে,সেই আলো, যাতে নেই আমার অধিকার,অল্প উষ্ণ কিছু শীতল, পাখির ডাকের মত,দূর করে ক্লান্তি, আনে নুতন আশা,আর একদিন দেখা দেবে বলে দেয় প্রতিশ্রুতি,ওই কিছুক্ষন,তারপরে রয়ে যায় তার উষ্ণতার রেশ,ডায়েরীতে লিখে রাখি সময়টা,আবার ফিরবে কি না কে জানে,মনখারাপের বৃষ্টি পড়লে খুলব মাঝে,মনে পড়বে সময়টা যখন এসেছিল… Continue reading রদ্দুর

শেষ ইচ্ছে

আসা যাওয়া পথের ধারে,আমার কুটির খানি,উঠোনখানিতে বেঞ্চিপাতাটেবিল দুটি খালি,পথিক আসে, কেউ যায় কেউ দাঁড়ায়,আমি বসে থাকি উনুন জ্বালায়,চলার পথে কেউ বা যদি আসে,এক কাপ চা দিতাম তাকে,ক্ষনিকের ত্বরে শুনতাম কথা,জীবনের সুখ মেটাতে কিছু ব্যাথা। আপন তরীতে ব্যাস্ত সবাই,মন খুলে কথাবলার সময়ও নাই,তারই মাঝে একজন আছে,দূরেই থেকেও সে যে কাছে থাকে,মিষ্টি কথায় মন ভরিয়ে দেয়,আপন করে… Continue reading শেষ ইচ্ছে

বিকেলে চায়ের কাপ

খুব ইচ্ছে করে বসে থাকি পাশে,সামনে টি পয়,তাতে গরম চা,চিনেমাটির কাপ থাকবে দুটি,চিনি আর দুধের পাত্র আলাদা,পশ্চিমে পড়ন্ত সুরজ্য ঢলে পড়ল বলে,শির শির করে উড়বে বাতাস,পাখিরা যাবে ঘরে ফিরে। তোমার মাথায় একটা চাদর চাপা,গোধুলির রংগে জ্বলছে নাকছাবিটা,আছ বেশ দিনের শেষে,এখনো যে অনেক দূর হবে যেতে। ভাবি বসে, কি ভাবছ তুমি মনে,এলোমেলো কত কি যেমনটি ঘোরে,আমার… Continue reading বিকেলে চায়ের কাপ

সৌরভ

কহে পুরুষ,  দাম্ভিকতার মাঝেই রয়ে যে পুরুষের গৌরব মান, সভ্যতার আলোর প্রদীপে তাই দেখ শত পুরুষের নাম, নারী কহে, লক্ষ নারীর নারীত্ত তে  জ্বলে আলোর শিখা ,হয়তো বোঝনা তুমি সেই আলোর উষ্ণতা,  নারীর সুন্দরতা নয় শুধু  পুরুষের বাহুডোরে, দেখেছে কি তার প্রকাশ,  যখন সে ফুল তুলে রাখে মাথে, জল ভরা কলস নিয়ে চলেছে কাখে, কোলে বসে তারই কচি শিশুটি,… Continue reading সৌরভ

সুধাকলস

বসে ছিলাম বুতিনের পাশে,না উঠে যায় চমকে পাছে,এলোমেলো চিন্তা আসে মাথায়,নানানরকম সুর তাল পাকায়,সবাইয়ের ভিতর আছে এক কলসি,জল ভরা নয়, ভরে যায় আপনি আপনি,ছোটো থেকে তুমি যা পাও যত স্নেহ মমতা,মাটির কলসে জমা থাকে সেই সব ভালবাসা,ধীরে ধীরে তুমি বড় হলে, নানা রংগে রং লাগালে,কলস কিন্তু থাকে সেই এক,মা বাবা ভাই বোনের ভালবাসার ব্যাগ,তুমি হয়ত… Continue reading সুধাকলস

দিনশেষে

সারাদিন পরে এই আমার সময়টাযখন দিনশেষের বাজে ঘড়ির ঘন্টা,ক্লান্ত দেহর উপর এলিয়ে পরে তার ছায়া,আকাশ পরদায় জ্বলে হাজার দিয়া,সময়টা বড়ই মধুর আমার কাছে,কয়েক মুহূর্ত শুধু তুমি থাক পাশে,জানিয়ে যাও আবার সকাল হবে,দিনের চেয়ে রাত সুখের রবে,তোমার মুখ চেয়ে তাই শুতে চলিযদি তুমি আস ফিরে হয়ে সপনের পরী,ঘুম পাড়িয়ে নিঃশব্দে সরে চল যাও কখন,“ভালবাসি বলে” কপালে… Continue reading দিনশেষে

অন্তমিল

রাস্তায় দাড়িয়ে ফল কিনছিল,দুইহাতে ঢাউস আকারে দুটি ব্যাগ,পাশে ছিপছিপে একজন দাড়িয়েছিল,তার কোলে বোধহয় ওদেরই এক ট্যাগ। সেদিন দেখা হল বুলির সাথে,আরে ওই মেয়েটা শ্যামলা রং,আমাদের ফ্ল্যটে থাকতে উপরে,গড়ন্ত গায়ে ছিল বেশ ঢং। স্কুলে যাওয়ার সময় তাকাতো টেরিয়ে,একটু দাড়াত হয়তো বোধহয়,ঘার টা ঘুরিয়ে বেণি দুলিয়ে,কিছু যেন দেখত আমায় বোধহয়। শুনতাম ওর পড়ার ধূম ঠিক সন্ধ্যাবেলায়ইতিহাস ভূগোল… Continue reading অন্তমিল

না বলা কথা

নানা কথার ভীরে আসল কথাটি,লুকিয়ে রয় মনের মাঝে,অনুভবের সাথে খেলে তারা লুকোচুরি,সময় ফুরিয়ে যাবার পরে। পুঞ্জীভূত কথা ভেসে বেড়ায় আমনে সামনে,যখন থাকি বসে নিরজনে একেলা,মনে হয় শুনি কিছু জবাব কখনো,এই যে আমার দিন রাতের খেলা। স্মৃতি টুকুই আমার যে সম্বল,মেঘলা দিনে পৃষ্ঠাগুলি খুলে খুলে দেখি,ছবিখানি এখনো আছে উজ্জ্বল,ভাবনাগুলি মনেই রেখে রাখি।