খেলা

একদিন খেলার ছলে দেখেছি তোমায়,
কয়েক মুহুরত মাত্র, সাথি ছিলে
আজ হারিয়ে গেছে হয়ত সেই সময়,
কিন্তু তুমি যে মিশে গেছ মোর ধমনিতে।
তোমার সৌরজগত ভাব তুমি আলাদা,
তোমার সন্সার সাথী বন্ধু সকল
আমি যে তোমার জগতে ধুমকেতু,
যুগ যুগান্ত ধরে যাই ঘুরে, পোশাক অদল বদল।
আমার কাছে ভালবাসা  এক বোধশক্তি,
তোমার আনন্দ,তোমার ব্যাথার সাক্ষী,
যে কটি পল, কাটাই সময় কাছেপিঠে,
তোমার দীপশিখার উষ্ণতার অপেক্ষি।
কল্পনায় প্রতি দিনরাত্রি তুমি যে মোর সাথে,
আমার মনের খেলার সাথী তুমি,
খেলতে খেলতে যে চলে গেছি একসাথে,
অনেক দূরে দুই হাত ধরাধরি।
নতুন করে তাই লিখে যাই আজ,
এক নাম না জানা ভালবাসা,
যেখানে হয়ত নেই কিছু চাওয়া পাওয়া,
কিন্তু আছে অনেক সাহস শান্তি ভরসা।

মেঘের দেশ

এক উড়ে যাওয়া মেঘের দেশে
রাজকন্যা এক দেয় হাতছানি,
মেঘবরণ ঘন কালো চুল,
রবির আলোয় আলোকিত কপোলখানি।

সারি সারি বক পাখি যায় পাশে,
নীল আকাশ যেন চিরে দুইভাগ,
বিরাংগনা মেঘকন্যা অদৃশ্য আড়ালে,
লিখে যায় ভবিষ্যতের দাগ।

পিছুটান

এই ব্যাপারটা আমার হয়
সবসময়,
পাইনা কোন কারন খুঁজে
পেতে,
তোমায় যখন দিই বিদায়,
তুমি যাও চলে মন্দগতিতে,
আমি থাকি দারিয়ে ঠায়,
তোমার প্রস্থান দেখতে দেখতে,
ভীষণ আবেগে বলি মনে,
“ফিরে তাকাও না প্রিয়ে”
প্রতিবার তুমি দাঁড়াও মুহুরত,
গ্রিবা ঘুরিয়ে দেখো ফিরত,
সেই এক পলকের দেখা,
আমার কাছে মিষ্টি মধুর ব্যাথা।